ছড়া ও শিশু সাহিত্যে সিএনসি জাতীয় পদক পেয়েছেন মুফতি মুঈনুল ইসলাম।

ছড়া ও শিশু সাহিত্যে সিএনসি জাতীয় পদক পেয়েছেন মুফতি মুঈনুল ইসলাম।

জাতীয় অধ্যাপক সৈয়দ আলী আহসান প্রতিষ্ঠিত সেন্টার ফর ন্যাশনাল কালচার জাতীয় পর্যায়ে প্রতি বছর গুণীজন সম্মাননা প্রদান করে। ২০১৯ সালে সিএনসি জাতীয় পদক ও সম্মাননা পান উত্তর জনপদের বানিজ্যিক নগরী সৈয়দপুরের ৫ কৃতি সন্তান।

সমাজসেবা, নারীশিক্ষা, কবিতা ও শিশু সাহিত্যে গত ২৫ ডিসেম্বর ২০১৯ পদক প্রদান করা হয়। ছড়া ও শিশু সাহিত্যে সিএনসি জাতীয় পদক পান আল মারকাজুল ইসলামীর সাবেক প্রধান মুফতি, জামিআ ইসলামিয়া ঢাকার প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল ও রেক্টর, কওমি এডুকেশন কাউন্সিল -এর চেয়ারম্যান, আল আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড -এর শরীয়াহ কাউন্সিল এর অন্যতম মেম্বার মুফতি মুঈনুল ইসলাম।

মুফতি মুঈনুল ঈনুল ইসলাম এর প্রথম লেখা প্রকাশিত হয় সুবহে সাদিক নামে একটি দেয়ালিকায় ১৯৮৯ সালে ময়মনসিংহে। প্রথম প্রকাশিত বই মহিলাদের মাসআালা মাসায়িল।

প্রকাশকাল এপ্রিল ১৯৯৭ সালে।বাংলা, ইংরেজি, আরবি,উর্দু ও ফার্সিতে রচিত শিশুদের জন্য ৫৯টি পাঠ্যপুস্তক ছাড়াও তাঁর রচিত ও সম্পাদিত পুস্তক সংখ্যা ষাটের অধিক।

তিনি তরজমাতুল কুরআন নামে প্রয়োজনীয় টীকাসহ কুরআনে কারীমের একটি মৌলিক অনুবাদ করেছেন ২০১০ সালে। তিনি ইসলামিক ফাউন্ডেশন ঢাকা এর গবেষণা বিভাগের সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য।

তিনি ইসলামিক ফিকাহ একাডেমি ইন্ডিয়া এর সদস্য। দেশের জাতীয় সেবামূলক সংস্থা গরীব এন্ড ইয়াতীম ট্রাস্ট ফাউন্ডেশন (জিটিএফ) এর জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল। তিনি নিউ ইস্কাটন ঢাকা এর বিয়াম ফাউন্ডেশন সংলগ্ন নূরবাগ জামে মসজিদ কমপ্লেক্স এর সম্মানিত খতিব।দারুল কুতুব আল ইসলামিয়া তাঁর প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান।

৬প্যারিদাস রোড, বাংলাবাজার ঢাকায় অবস্থিত। মুফতি মুঈনুল ইসলাম এর প্রধান পেশা শিক্ষকতা ও গবেষণা। তার অসংখ্য গবেষণা প্রবন্ধ আছে। তিনি উচ্চতর ইসলামি আইন গবেষণা ও প্রশিক্ষণ বিভাগে শিক্ষকতা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *